Trade Media
     

হাউসবোট


একটি হাউসবোটে চড়ে গোটা কেরালা রাজ্য ভ্রমণ!

আপনি কি কোনদিন কেরালার ব্যাকওয়াটারের উপর দিয়ে কোন হাউসবোটে চড়ে বেরিয়েছেন? যদি না চড়ে থাকেন, তাহলে অবশ্যই একবার চড়ুন। এটি সত্যিই এক অসাধারণ ও অবিস্মরণীয় অভিজ্ঞতা!

আধুনিক কালের হাউসবোট-গুলি বিশাল আকারের হয়। ধীর গতির বড় বজরাগুলিকে প্রমোদ ভ্রমণের জন্য ব্যবহার করা হয় এবং এগুলি আসলে কেরালার প্রাচীন কেত্তুভল্লমগুলির আধুনিক সংস্করণ। কেত্তুভল্লমগুলিকে প্রকতপক্ষে প্রচুর পরিমাণে চাল ও মশলা বহন করে নিয়ে যাবার কাজে ব্যবহার করা হত। একটি প্রমাণ আকারের কেত্তুভল্লমে করে 30 টন অবধি মাল কুট্টান্ড থেকে কোচি বন্দরে বয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।

কেত্তুভল্লমকে নারকোল দড়ি দিয়ে বেঁধে তৈরি করা হয়। এই নৌকো তৈরির কাজে এমন কি একটি পেরেকও ব্যবহার করা হয় না। জ্যাকউডের তক্তাগুলিকে নারকোল দড়ি দিয়ে বেঁধে বেঁধে এই নৌকো তৈরি করা হয়। এরপর এটিতে কাজু বাদামের শাস ফুটিয়ে তৈরি করা কালো প্লাস্টিক রজনের পরত লাগানো হয়। যত্নসহকারে রক্ষণাবেক্ষণ করলে একটি কেত্তুভল্লম কয়েক প্রজন্ম ধরে টিকে থাকতে পারে।

কেত্তুভল্লমের একটি অংশকে বাঁশ ও ছোবরা দিয়ে আচ্ছাদিত করা হতো সেখানে নাবিকদলের রান্নাঘর ও বিশ্রামঘর তৈরির জন্য। চলন্ত নৌকোতেই রান্নাবান্না হত এবং রোজকার খাবারে ব্যাকওয়াটার থেকে ধরা তাজা মাছের পদ থাকত।

আধুনিক যুগের লরিগুলি যখন পরিবহণব্যবস্থার এহেন ধরনের স্থান দখল করে নিল, কেউ কেউ এই নৌকোগুলিকে বাঁচিয়ে রাখার অন্য রাস্তার সন্ধান করলেন, আর বর্তমানে বাজারে থাকা সেই সবকটি নৌকোই কমপক্ষে 100 বছরের পুরনো। নৌকোগুলির মধ্যেই পর্যটকদের থাকার জন্য বিশেষ কক্ষ তৈরি হল এবং এগুলি তাদের বিলুপ্তির কালোছায়া অতিক্রম করে নতুন উদ্যমে জলভ্রমণে বেরিয়ে পড়ল আধুনিক যুগের বিপুল জনপ্রিয়তা উপভোগ করার জন্য।

বর্তমানে এই নৌকোগুলি ব্যাকওয়াটারের অত্যন্ত পরিচিত দৃশ্য এবং শুধুমাত্র আলাপ্পুঝাতেই কম-বেশি 500টি হাউসবোট দেখতে পাওয়া যায়।

কেত্তুভল্লমগুলিকে হাউসবোটে রূপান্তরিত করার সময় শুধুমাত্র প্রাকৃতিক উপাদানগুলিই ব্যবহার করার ব্যাপারে বিশেষ খেয়াল রাখা হয়। ছাদ তৈরির জন্য বেতের মাদুর, কঞ্চি এবং সুপারি গাছের গুড়ি ব্যবহার করা হয়, মেঝের জন্য ছোবরার মাদুর এবং কাঠের তক্তা ব্যবহার করা হয় এবং বিছানার জন্য নারকোল গাছের গুড়ি এবং ছোবরা ব্যবহার করা হয়। আলোর জন্য সৌর-প্যানেল ব্যবহার করা হয়।

আধুনিক কালের হাইসবোটগুলিতে একটি ভাল হোটেলের সমস্ত সুবিধাগুলিই থাকে যার মধ্যে রয়েছে সুসজ্জিত শয়নকক্ষ, আধুনিক শৌচালয়, আরামদায়ক বৈঠকখানা, রান্নাঘর এবং এমন কি মাছ ধরার সুবিধার জন্য একটি ঝুল বারান্দা পর্যন্ত। কাঠ খোদাই করে বা পাতা বুনে তৈরি বাঁকানো ছাদ বাইরের দিকে খুলে যায় যা ঝুল বারান্দায় থাকাকালীন আপনাকে ছায়া প্রদান করে কিন্তু আপনার সামনের দৃশ্যপট বিঘ্নিত করে না। এখানাকার বেশিরভাগ নৌকগুলিই মাঝিরা দার টেনে চালনা করলেও এমন কিছু নৌকোও আছে যেগুলিতে 40 অশ্বশক্তি বিশিষ্ট  ইঞ্জিন দ্বারা চালিত। বড় দলে আসা পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য দুটি বা তার বেশি হাউসবোট জুড়ে রেলগাড়ির আদল তৈরি করে নিয়ে ব্যবহার করা হয়।

হাউসবোটগুলির সত্যিকারের মনোমুগ্ধকর বিষয়টি হল কেরালার অধরা ও অন্যথায় অগম্য গ্রামীণ অঞ্চলগুলির মনোরম দৃশ্য অবলোকন করা, যা আপনি ভাসতে ভাসতে পেয়ে যেতে পারেন!


 

Photos
Photos
information
Souvenirs
 
     
Department of Tourism, Government of Kerala,
Park View, Thiruvananthapuram, Kerala, India - 695 033
Phone: +91-471-2321132 Fax: +91-471-2322279.

Tourist Information toll free No:1-800-425-4747
Tourist Alert Service No:9846300100
Email: info@keralatourism.org, deptour@keralatourism.org

All rights reserved © Kerala Tourism 1998. Copyright Terms of Use
Designed by Stark Communications, Hari & Das Design.
Developed & Maintained by Invis Multimedia